ঢাকা, বাংলাদেশ | ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, বৃহঃস্পতিবার

লেনদেনের তথ্য এসএমএস অ্যালাটের মাধ্যমে জানাতে হবে

ঈদের ছুটিতে এটিএম বুথে পর্যাপ্ত টাকা রাখার নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক:

| প্রকাশিত হয়েছে: June ১১, ২০১৮: ১৬ টা ০৩ মিনিটে

ঈদুল ফিতরের ছুটিতে অটোমেটেড টেলার মেশিন (এটিএম), পয়েন্ট অব সেল (পজ), ই-পেমেন্ট গেটওয়ে ও মোবাইল ফিনান্সিয়াল সার্ভিসেস (এমএফএস) এর মাধ্যমে নিরবিচ্ছিন্ন লেনদেন নিশ্চিতে বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোকে নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এ সময়ে গ্রাহকদের সুবিধার্থে ব্যাংকের এটিএম (অটোমেটেড টেলার মেশিন) বুথে পর্যাপ্ত নগদ টাকা সরবরাহ এবং এটিএম ও পয়েন্ট অব সেল (পজ) নেটওয়ার্ক সার্বক্ষণিক সচল থাকার বিষয়টিও নিশ্চিত করতে বলা হয়েছে।

শুধু তাই নয়, এসব সেবার আওতায় যে কোন অঙ্কের লেনদেনের তথ্য এসএমএস অ্যালার্ট সার্ভিসের মাধ্যমে গ্রাহককে অবহিত করা এবং গ্রাহক হয়রানি রোধে হেল্পলাইন সহায়তা প্রদান করার কথাও বলা হয়েছে। সোমবার বাংলাদেশ ব্যাংকের পেমেন্ট সিস্টেম বিভাগ থেকে এ-সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করে দেশের সব বাণিজ্যিক ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীর কাছে পাঠানো হয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তারা জানান, ঈদুল ফিতর উপলক্ষে বাড়তি কেনাকাটা এবং উৎসবকালীন সময়ে ব্যাংকের শাখা বন্ধ থাকায় গ্রাহকরা অধিকহারে এটিএম বুথ, পয়েন্ট অব সেল, ই-পেমেন্ট গেটওয়ে ব্যবহার করে ইলেকট্রনিক পদ্ধতিতে লেনদেন সম্পন্ন করে। এছাড়া এ সময়ে দেশের এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে টাকা পাঠাতে মোবাইল ফিনান্সিয়াল সার্ভিসেস এর ব্যবহারও বাড়ে। তাই এসব ইলেকট্রনিক লেনদেনে গ্রাহক স্বার্থ সংরক্ষণের বিষয়টি নিশ্চিতের জন্য ব্যাংকগুলোকে এসব নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

এটিএম বুথ সেবা: এক্ষেত্রে ৪টি নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। এগুলো হলো-সার্বক্ষনিক এটিএম সেবা নিশ্চিত করা, এটিএমে কোন প্রকার কারিগরি ত্রুটি দেখা দিলে তা দ্রুততম সময়ের মধ্যে নিরসনের ব্যবস্থা গ্রহন, এটিএম বুথে পর্যাপ্ত টাকা সরবরাহ নিশ্চিত করা এবং এটিএম বুথে সার্বক্ষনিক পাহাড়াদারের সতর্ক অবস্থানসহ অন্যান্য নিরাপত্ত ব্যবস্থা নিশ্চিত করা।

পয়েন্ট অব সেল বা পজ সেবা: এক্ষেত্রে দুটি নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। এগুলো হলো-সার্বক্ষনিক পজ সেবা নিশ্চিত করা এবং জাল জালিয়াতি রোধে মার্চেন্ট এবং গ্রাহককে সচেতন করা।

ই-পেমেন্ট গেটওয়ে সেবাঃ এক্ষেত্রে ১টি নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। এতে বলা হয়েছে-অনলাইন ই-পেমেন্ট গেটওয়ে-তে কার্ডভিত্তিক ‘কার্ড নট পেজেন্ট’ লেনদেনের ক্ষেত্রে টু ফেক্টর অথেনটিকেশন (২এফএ) চালু রাখতে হবে।

মোবাইল ফিনান্সিয়াল সার্ভিসেস বা এমএফএস সেবা: এক্ষেত্রে এমএফএস সেবা প্রদানকারি সকল ব্যাংক ও তাদের সাবসিডিয়ারি কোম্পানিসমূহকে নিরবিচ্ছিন্ন লেনদেন নিশ্চিত করতে বলা হয়েছে।

সার্কুলারে আরো বলা হয়েছে, ইলেকট্রনিক পদ্ধতিতে সকল ধরনের পরিশোধ সেবার ক্ষেত্রে গ্রাহকদের সতর্কতা অবলম্বনের জন্য গণমাধ্যমে বিভিন্নরকম প্রচার-প্রচারনার ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। এছাড়া এ সকল লেনদেনের ক্ষেত্রে কোন অবস্থাতেই গ্রাহক যেন হয়রানির শিকার না হয় তার ব্যবস্থা গ্রহন করা এবং সার্বক্ষনিক হেল্পলাইন সহায়তা প্রদান করতে হবে।

Print Friendly, PDF & Email